সোমবার   ১৮ অক্টোবর ২০২১

সর্বশেষ
শ্রীনগরে আর্থিক কষ্টে মৃৎশিল্পীরা সিরাজদিখানে হাজারো মানুষের ভরসা বাঁশের সাঁকো টঙ্গিবাড়ী উপজেলা ছাত্রদলের পক্ষ থেকে চলছে দোয়া ও বৃক্ষরোপন কর্মসূচী ঝুঁকি নিয়েই ঢাকায় ফিরছে মানুষ উৎসবানন্দে নিঃশঙ্ক চিত্ত জেলার সর্ববৃহৎ বালিগাঁও বাজারে মানুষের উপচে পরা ভির মে পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হতে পারে ৫০ হাজার মানুষ জেলায় লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমিত মুন্সীগঞ্জে চঙ্গ তৈরি করার কারনে পুরো একটি গ্রামের নাম পরিবর্তন কোভিড-১৯ মোকাবেলা চ্যালেঞ্জিং, তবে অসম্ভব নয় - মোঃ শফিকুল ইসলাম জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সেবা দিচ্ছেন সংবাদকর্মীরাঃ মৃনাল কান্তি দাস প্রকৃত জনপ্রতিনিধি হিসেবে প্রতীয়মানের এখনই সুযােগঃআবু বকর সিদ্দিক শ্রীনগরে নার্সারীতে বাহারী আমের বাম্পার ফলন বসল পদ্মা সেতুর ২৯তম স্প্যানঃ দৃশ্যমান ৪ হাজার ৩৫০ মিটার করোনা ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছে যে সকল গণমাধ্যমকর্মীরা.. জেলার ৭৪টি হিমাগার ৪০ ভাগ ফাঁকা-৮০০ কোটি টাকা লোকসানের শঙ্কা ধেয়ে আসছে কালবৈশাখী ঝড় মুন্সীগঞ্জে বর্ষা মৌসুম সামনে রেখে চলছে চাঁই তৈরীর ধুম ২ মিনিটেই মারা যাবে করোনা ভাইরাস নজরদারি বৃদ্ধি করতে বলা হয়েছেঃ পৌর মেয়র বিপ্লব মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কঠোর নির্দেশনা ৯৮ সালে প্রলয়ংকারী বন্যা মোকাবেলার দৃষ্টান্ত তুলে ধরলেনঃমহিউদ্দিন মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার প্রতিদিন জীবানু নাশক পনি ছিটান অব্যাহত গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় মারা যাওয়া সবাই ঢাকার আড়িয়ল বিলের মিষ্টি কুমড়া সবচেয়ে সেরা জেলা শহরের বিভিন্ন সড়ক ফাঁকা মুন্সীগঞ্জে আওয়ামী লীগসহ প্রশাসনের নানা আয়োজন মধুচাষে লোকসান টঙ্গীবাড়ীতে ১০০ ছাত্র ছাত্রীদের মাঝে মেধাবৃত্তি প্রদান টিসিবি`র পিয়াজ বিক্রি করতে হেলমেট পরতে হয় না
২২

জাতীয় শিক্ষাক্রম রুপরেখা -২০২০ বাস্তবায়ন সম্ভবঃ ভার্চুয়াল সেশন

প্রকাশিত: ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১  

জবাবদিহীতা ও একাডেমিক পরিদর্শনের মাধ্যমে নতুন জাতীয় শিক্ষাক্রম রুপরেখা -২০২০ বাস্তবায়ন সম্ভবঃ ভার্চুয়াল সেশনে বক্তাগন।

গত ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১ইং সন্ধ্যা ৮:০০টায় আগামীর বাংলাদশ আয়োজিত ”নতুন জাতীয় শিক্ষাক্রম রুপরেখা-২০২০ঃ চ্যালেঞ্জ ও করনীয়” শীর্ষক ভার্চুয়াল সেশন অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনায় অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেনঃ  এন. আই খান, সাবেক শিক্ষা সচিব,  অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ তারিক আহসান, আইইআর, ঢাবি এবং সদস্য, শিক্ষাক্রম উন্নয়ন কমিটি এবং এস.এম আব্বাস, সিনিয়র রিপোর্টার, বাংলা ট্রিবিউন। সেশনে জাতীয় শিক্ষাক্রম উন্নয়ন কমিটির সদস্য প্রফেসর ড. তারিক আহসান বলেন, যুগের প্রয়োজনে বর্তমান নতুন জাতীয় শিক্ষাক্রম যুগোপযোগি। এটি বাস্তবায়নের জন্য দক্ষ শিক্ষক ও স্থানীয় পর্যায়ের প্রশিক্ষনের বিষয়ে রিপোর্টে জোরোলো সুপারিশ করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেন। নবম-দশম শ্রেনীতে বিজ্ঞানের শিক্ষার্থীদের যথাযত মৌলিক জ্ঞানের পাশাপাশি উদ্ভাবনী ও বাস্তব সম্মত জ্ঞান বাস্তবায়ন হবে বলে তিনি স্পষ্ট করেন। মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের কারিকুলামও শিক্ষাক্রম রুপরেখা অনুযায়ী আধুনিকায়ন করা হবে বলে নিশ্চিত করেন।  সাবেক শিক্ষা সচিব এন.আই খান তাঁর ব্ক্তব্যে, ”নতুন জাতীয় শিক্ষাক্রম রুপরেখা-২০২০ বাস্তবায়নের জন্য সকল পক্ষের জবাবদিহীতা নিশ্চিতকরন, একাডেমিক পরদর্শন, ফেইস অনুযায়ী একশন প্লান বাস্তবায়ন, এলাকা অনুযায়ী প্রার্ন্তিক শিক্ষকদের প্রশিক্ষন, স্থানীয় রাজনীতিবিদ ও স্কুলের ম্যানিজিং কমিটিকে সম্পৃক্তকরন, বিষয় ভিত্তিক শিক্ষক নিয়োগ, শিক্ষকদের শিক্ষা প্রশাসনের কাজের সুযোগ সৃষ্টি ও সামাজিক মর্যাদা বৃদ্ধির উপর গুরুত্ব তুলে ধরেন।সেশনের শুরুতে শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক আবু জাফর আহমেদ মুকুল সেশনে জাতীয় শিক্ষাক্রম রুপরেখা-২০২০ এর সার সংক্ষেপ উপস্থাপন ধরেন।  এছাড়াও প্ল্যাটফর্মের কোর গ্রুপের সম্মানিত সদস্যসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী, শিক্ষক নেতৃবৃন্দ এবং বিভিন্ন বিষয়ের বিশেষজ্ঞরা তাদের মতামত তুলে ধরেন সেশনে সরকারি কর্মকর্তা, যুব প্রতিনিধি, এনজিও প্রতিনিধি, ব্যক্তিখাতের উদ্যোক্তা, সমাজকর্মী, পেশাজীবি এবং গণমাধ্যমকর্মীসহ নাগরিক সমাজের বিশিষ্ট ব্যক্তিরা সংযুক্ত ছিলেন।

 

এই বিভাগের আরো খবর